সোমবার, ২২ জুলাই ২০২৪, ১১:৫৩ পূর্বাহ্ন

১৫ আগস্ট ঘাতকরা শুধু বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করেনি, হত্যা করেছে বিশ্বের ক্যারিশম্যাটিক লিডারকে: সাংবাদিক আরিফ

মোঃ আলতাফ হোসেন বাবু- ব্যুরোচিফ, রাজশাহী
  • প্রকাশিত : মঙ্গলবার, ১৫ আগস্ট, ২০২৩

সোনালী রাজশাহী : ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস। স্বাধীনতার মহান স্থপতি, সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর ৪৮তম শাহাদত বার্ষিকী। বাঙালি জাতির ইতিহাসে এ এক বেদনাময় দিন। শোকাবহ এই দিনে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব শহিদ হয়েছে।

১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট দেশের স্বাধীনতা বিরোধী ষড়যন্ত্রকারীদের প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ মদদে ঘাতকচক্রের হাতে ধানমন্ডির ৩২ নম্বরে নিজ বাসভবনে বাঙালি জাতির অবিসংবাদিত নেতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বঙ্গবন্ধুর সহধর্মিণী বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিবসহ আরো অনেকে শহিদ হন। এই নৃশংস হত্যাকাণ্ড পৃথিবীর ইতিহাসে বিরল।

 

৭৫এর ১৫ আগস্ট শুধু জাতির পিতার পরিবারের জীবনকে স্তম্ভিত করে দেয়নি, স্তম্ভিত করে দিয়েছে জাতির ভবিষৎ পরিকল্পনাকে এবং সোনার বাংলা স্বপ্নকে । বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করেনি হত্যা করেছে তাঁর নীতি, আদর্শ এবং মানবতার পক্ষে বলিষ্ট কন্ঠস্বরকে।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সহপরিবারে নির্মম ভাবে হত্যার পর, এ দেশের অপশক্তিরা বাংলার বুক থেকে জাতির পিতার নাম মুছে ফেলে দিবার ব্যর্থ চেষ্টা করেছে বহু বছর ধরে। বঙ্গবন্ধুর বিশ্বাসে নিঃশ্বাস ফেলা মীরজাফররা তাঁকে হত্যার নীল নকশা একেছিল।

”১৫ আগস্ট মানে কি কাঙালি ভোজ, কালো বেইজ পরাতে সীমাবন্ধ। ১৫ আগস্ট মানে কি কালো পান্জাবী পরে, হৈ চৈ করে কাঙালি ভোজ বিতরণ “না”

সেই দিনে বাঙালী জাতির সর্বশ্রেষ্ঠ সন্তানকে সহপরিবারে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়েছিল।
এই হত্যাকান্ডে বাংলার আকাশ বাতাস কম্পিত হয়েছিল। তাই এই দিবসের তাৎপর্য বঙ্গবন্ধুর প্রকৃত প্রেমিক ছাড়া কেউ অনুধাপন করতে পারবেননা।

 

বঙ্গবন্ধু মানে বাঙালী জাতির অধিকার, স্বাধীনতা, বঙ্গবন্ধু মানে বাঙালী জাতির সমস্ত চাওয়ার প্রতিবিম্ব, বঙ্গবন্ধু মানে সোনার বাংলা, বঙ্গবন্ধু মানে শোষিতদের মুক্তির স্লোগান। বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করা মানে বিশ্বের ক্যারিশম্যাটিক লিডারকে হত্যা করা, বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করা মানে নির্য়াতীত, নিপিড়ীত মানুষের বলিষ্ঠ কন্ঠকে রোদ্ধ করা আর সোনার বাংলা স্বপ্নকে হত্যা করা।

১৫ আগস্টে বঙ্গবন্ধুর খুনীরা তাঁকে সহপরিবারে হত্যা করেও তাদের রক্তের পিপাসা মিটেনি । পরবর্তীতে নতুন ষড়যন্ত্রের জাল স্বরূপ কালো আইন জারি করে বিশ্বের জঘন্যতম হত্যাকান্ডের বিচারকে আইনের শিকলে বেঁধে ফেলেন। সেই সাথে স্বাধীনতা যুদ্ধে প্রেরণাকারী স্লোগান ” জয় বাংলা “কে মুছে ফেলার চেষ্টা করেন। কিন্তুু বঙ্গবন্ধু প্রেমিক মানুষের মন থেকে বঙ্গবন্ধু হত্যার বিচার ও জয় বাংলা স্লোগানকে শিকল পরাতে পারেননি তারা। ”
সাংবাদিক মোঃ আরিফ হোসেন।

এই বিভাগের আরও খবর