সোমবার, ২২ জুলাই ২০২৪, ০৫:২৪ পূর্বাহ্ন

কিয়েভে আবাসিক ভবনে রাশিয়ার হামলা

  • প্রকাশিত : শনিবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী, ২০২২

ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভের একটি আবাসিক ভবনে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়েছে রাশিয়া। শনিবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) কিয়েভের আবাসিক ভবনের ধ্বংসযজ্ঞের ওই ছবি সামাজিক মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। যা দেখে কিয়েভের বাসিন্দাদের মনে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।

খবর বিবিসির।

ঘটনাটি ঘটেছে রাজধানী কিয়েভের ঝুলিয়ানি বিমানবন্দরের কাছে একটি ভবনে।ভবনটিতে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালানো হয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে। রয়টার্সের এক প্রতিবেদনেও বলা হয়েছে যে, কিয়েভের বিমানবন্দরের কাছে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালানো হয়েছে।

এদিকে বৃহস্পতিবার ইউক্রেনে হামলা চালানোর পর প্রথমবারের মতো রাশিয়া দেশটির একটি উল্লেখযোগ্য জনবহুল শহর দখলের দাবি করেছে।দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় এ তথ্য নিশ্চিত করেছে। বিবিসির প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে দখল হওয়া শহটির নাম মেলিটপল। শহরটিতে বর্তমানে প্রায় দেড় লাখ মানুষ বসবাস করছে।

শহরটির অবস্থান ইউক্রেনের দক্ষিণাঞ্চলীয় জাপোরিঝঝিয়ায় গুরুত্বপূর্ণ মেরিউপোল বন্দরের কাছে।

এদিকে, রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধে এখন পর্যন্ত সাড়ে ৩ হাজার রুশ সেনা নিহত এবং ২০০ জনকে বন্দি করা হয়েছে বলে দাবি ইউক্রেনের।

শনিবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি এ তথ্য জানিয়েছে।

বিবিসির তথ্য মতে, ইউক্রেন সেনাবাহিনীর ফেসবুক পেজ থেকে জানানো হয়েছে, আক্রমণে জড়িত রাশিয়ার ৩ হাজার ৫০০ সেনা নিহত হয়েছে এবং ২০০ সেনা সদস্যকে বন্দি করা হয়েছে। এছাড়া রাশিয়ার ১৪টি যুদ্ধবিমান, ৮টি হেলিকপ্টার এবং ১০২টি ট্যাংক ধ্বংস করা হয়েছে।

এদিকে রাশিয়া এখন পর্যন্ত হতাহতের কোনো তথ্য জানায়নি।

উল্লেখ্য, গত বৃহস্পতিবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) সকালে ইউক্রেনে সামরিক অভিযানের ঘোষণা দেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট পুতিন। এরপর ইউক্রেনে হামলা শুরু করে রুশ সেনারা। দিনভর তিন দিক থেকে ইউক্রেনে হামলা চালিয়েছে তারা। এতে ইউক্রেনের ১৩৭ সেনা এবং রাশিয়ারি ১২ সেনা নিহত হয়।

তৃতীয় দিনের শুরু থেকেই ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভজুড়ে ব্যাপক গোলাবর্ষণ চলছে। কিয়েভের একটি সামরিক ঘাঁটিতে হামলা চালিয়েছে রুশ বাহিনী। তবে ফেসবুকে দেওয়া এক পোস্টে ইউক্রেনের সামরিক বাহিনী জানিয়েছে, রুশ বাহিনীর ওই হামলা ব্যর্থ করে দেওয়া হয়েছে।

সূত্র : বিবিসি, ডেইলি মেইল

এই বিভাগের আরও খবর