বুধবার, ২৪ জুলাই ২০২৪, ০৯:৫৪ অপরাহ্ন

মারিওপোলে রুশ হামলায় ৫ হাজার মানুষের প্রাণহানি

  • প্রকাশিত : মঙ্গলবার, ২৯ মার্চ, ২০২২

ইউক্রেনের দক্ষিণাঞ্চলীয় গুরুত্বপূর্ণ শহর মারিওপোলে রাশিয়ার বাহিনীর হামলায় নিহত বেড়ে পাঁচ হাজারে দাঁড়িয়েছে। নিহতদের মধ্যে নারী ও শিশুও রয়েছেন। শহরটির মেয়রের বরাত দিয়ে সোমবার এ তথ্য জানিয়েছেন তার মুখপাত্র। খবর রয়টার্স, ফার্স্ট পোস্ট ও দ্য মিররের।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, শহরটির মেয়রের তথ্যানুযায়ী, ইউক্রেনে রুশ আগ্রাসনের শুরু থেকে এ পর্যন্ত মারিওপোল শহরে প্রায় ৫ হাজার বাসিন্দা নিহত হয়েছেন। নিহতদের মধ্যে ২১০ জন শিশুও রয়েছে।

মেয়র অফিসের মুখপাত্র বলেন, রুশ হামলায় মারিওপোলের ৯০ ভাগ ঘরবাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। আর ৪০ ভাগ বাড়িঘর ধ্বংস করে দেওয়া হয়েছে।

ইউক্রেনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, মারিওপোলে বিপর্যয়কর পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। জল, স্থল ও বিমান পথ থেকে হামলায় বাড়িঘর বিধ্বস্ত হওয়ায় সাড়ে চার লাখ লোক এখন ময়লার স্তুপে বসবাস করছেন।

প্রেসিডেন্ট জেলেনস্কির উপদেষ্টা তেতিয়ানা লোমাকিনা বলেন, ৫০০০ মানুষকে সমাধিস্থ করা হয়েছে। গোলাবর্ষণ অব্যাহত থাকায় গত ১০ দিন আগে থেকে সমাধিস্থ করার কার্যক্রম বন্ধ আছে।

মারিওপোলের মেয়র ভাদিম বয়চেঙ্কোর উদ্ধৃতি দিয়ে ইউক্রেনীয় বার্তাসংস্থা ইন্টারফ্যাক্স ইউক্রেন জানিয়েছে, রুশ সামরিক অভিযানের মধ্যে অনেকে বের হয়ে আসতে পারলেও রোববার পর্যন্ত মারিওপোল শহরে এখনও ১ লাখ ৭০ হাজার বাসিন্দা অবস্থান করছিলেন। এতে আরও বলা হয়েছে, রুশ হামলায় শহরের বহুতল আবাসিক ভবনগুলোর ৯০ শতাংশই ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

ইউক্রেনীয় ওই বার্তাসংস্থার দাবি, রাশিয়ার সামরিক বাহিনীর অনবরত হামলায় ৭টি হাসপাতাল ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে, যার মধ্যে তিনটি সম্পূর্ণ ধ্বংস হয়ে গেছে। এছাড়া একই কারণে মারিওপোলের ৫৭টি স্কুল ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে, যার মধ্যে ২৩টি ধ্বংস হয়ে গেছে।

গত ২৪ ফেব্রুয়ারি রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ইউক্রেনে আগ্রাসন চালানোর নির্দেশ দেন। এক সময়ের বেশি সময় অতিবাহিত হলেও এখনও যুদ্ধ বন্ধ হয়নি।

এই বিভাগের আরও খবর