বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই ২০২৪, ১২:৩৯ পূর্বাহ্ন

রহস্যময় বারমুডা ট্রায়াঙ্গলে ভ্রমণে যে ‘টোপ’ দিল জাহাজ কোম্পানি

  • প্রকাশিত : রবিবার, ২৯ মে, ২০২২

বারমুডা ট্রায়াঙ্গল এক অপার রহস্যের নাম। উত্তর আটলান্টিক মহাসাগরের এই জায়গাটিতে প্রচলিত আছে হাজারও হাড়হিম করা কাহিনী। কথিত আছে বারমুডা ট্রায়াঙ্গল পার হতে পারে না কোনো জাহাজ কিংবা বিমান। অনেক জাহাজ, বিমান নাকি সেখানে নিখোঁজ হয়েছে! এবার রহস্য ও আতঙ্কে মোড়া সেই জায়গাটি ভ্রমণের জন্য একটি একটি ক্রুজ কোম্পানি যাত্রীদের জন্য নিয়ে এসেছে অভিনব ‘টোপ’।

ওই ক্রুজ কোম্পানির যাত্রীদের প্রস্তাব দিয়েছে যে রহস্যময় বারমুডা ট্রায়াঙ্গলে ভ্রমণের সময় তাদের জাহাজটি অদৃশ্য হয়ে গেলে তাদের টিকিটের পুরো দাম ফিরিয়ে দেওয়া হবে।

ক্রুজ সংস্থা নরওয়েজিয়ান প্রাইমা লাইনার নিয়ে এসেছে এই লোভনীয় অফার।

সংস্থাটি জানিয়েছে, দু’দিনের এই সফরে যাত্রীদের মাথাপিছু খরচ পড়বে ১৪৫০ পাউন্ড।

বারমুডা ট্রায়াঙ্গলে হারিয়ে যাওয়ার কোনো ভয় নেই বলেও যাত্রীদের নিশ্চিত করেছে সংস্থাটি। যাত্রীদের সুস্থ ভাবে ঘরে ফেরার ১০০ শতাংশ গ্যারান্টি দিয়েছে তারা।
তবে জাহাজ যদি নেহাতই নিখোঁজ হয়, তাহলে টিকিটের পুরো খরচ ফেরত দেওয়া হবে বলে জানিয়েছে প্রাইমা লাইনার।

তবে প্রশ্ন উঠছে জাহাজ নিখোঁজ হলে যাত্রীও নিখোঁজ হবেন। তাহলে কাকে অর্থ ফেরত দেবে সংস্থাটি? এর উত্তর অবশ্য প্রাইমা লাইনার দেয়নি।

আটলান্টিক মহাসাগরে আমেরিকার দক্ষিণ-পূর্ব উপকূলে বারমুডা, ফ্লোরিডা এবং পুয়ের্তো রিকোর মাঝামাঝি জায়গা বারমুডা ট্রায়াঙ্গল নামে পরিচিত। একে ডেভিল ট্রায়াঙ্গলও বলা হয়। ৫ লাখ স্কয়ার মাইল জুড়ে বিস্তৃত এলাকাটিতে একাধিক জাহাজ ও বিমান নিখোঁজ হওয়ার কারণ অজানাই রয়ে গেছে। ফলে ওই জায়গাটিকে ঘিরে রহস্য আরও ঘণীভূত হয়েছে।

এর মধ্যে ২০১৭ সালে অস্ট্রেলিয়ান বিজ্ঞানী কার্লস ক্রুসজেলনিকি দাবি করেন, বারমুডা ট্রায়াঙ্গলে আদতে কোনো রহস্য নেই। মানুষের ভুল আর খারাপ আবহাওয়ার কারণেই দুর্ঘটনাগুলো ঘটেছে।

মনে করা হচ্ছে, বিজ্ঞানীর বক্তব্যের পরেও যারা আটলান্টিক মহাসাগরের ওই জলাংশ নিয়ে ভিত, ক্রুজ সংস্থা নরওয়েজিয়ান প্রাইমা লাইনারের অভিনব ভ্রমণ হয়তো তাদের জন্য বিশ্বাসযোগ্য বার্তা বয়ে আনবে। সূত্র: এনডিটিভি

এই বিভাগের আরও খবর